ডিপ্রেশন বা হতাশাঃ উত্তোরনের উপায়-

0
145

লেখকঃ নাদিম রহমান
ডিপ্রেশন এমন একটা জিনিস যেটার জন্য মানুষ অনেক ভুল সিদ্ধান্ত নেয়। আসলে ডিপ্রেশন হঠাৎ করে হয় না। মানুষ যখন তার অতীত এর ভুলের জন্য ভবিষ্যতে এর ফলাফল খারাপ হবে এইটা চিন্তা করে তখন সে ডিপ্রেশনে পড়ে যায়। আসলে ডিপ্রেশনে পড়ার নানা কারন আছে। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত এইটা ভাবার কারনে মানুষ ডিপ্রেশনে ভুগে।
তবে ডিপ্রেশন দূর করার জন্য ইসলাম অনেক সাহায্য করে। একটা গল্প দিয়ে শুরু করি।

একজন লোক তার নাম রফিক। তিনি একজন বিরাট ব্যাবসায়িক মানুষ ছিলেন। তার ব্যাবসা খুব ভালো চলছিল। হঠাৎ করে একদিন রাতে আগুন লেগে তার দোকান পুড়ে যায়। এতে রফিক সাহেবের অনেক ক্ষতি হয়। তিনি অনেক হতাশ হয়ে পড়েন। কীভাবে কী করবেন বুঝতেছেন না। তিনি অনেক ডিপ্রেশনে পড়ে যায়। তার একদিন রাতেও ঠিক মতো ঘুম হয় না। এইভাবে কেটে গেলো ৫ দিন।
রফিক সাহেবের রাতে ঘুম আসে না দেখে তিনি রাতে বাসা থেকে বেরিয়ে রাস্তার ধারের ল্যাম্প পোস্ট এর নিচে গিয়ে মাথায় হাত দিয়ে চিন্তা করতে লাগলো। তাকে অনেকক্ষন যাবত একটা লোক খেয়াল করতে ছিলেন। তার পর ঐ লোকটা রফিক সাহেবের কাছে আসলো। এর পর তাদের কথোপকথন……

লোক : ভাই আপনার কি হয়েছে। আপনার কি মন খারাপ??
রফিক : না ভাই। আপনি আপনার কাজে যান তো..! (ধমক সুরে)
লোক : ভাই আমার সাথে শেয়ার করেন হয়তো আমি আপনার সমস্যার সমাধান দিতে পারবো।
রফিক : তাহলে শুনুন…
(এর পর রফিক তার সব কথা বললো)
রফিক সাহেবের কথা শুনে কিছুক্ষন চুপ থাকার পর লোকটা তাকে বললো ” আমি আপনাকে কয়টা কাজ দিব। আপনি ৭ দিন কাজগুলা করবেন। তাহলে দেখবেন আপনার হতাশা দূর হয়ে যাবে। কাজগুলো হলো…..
১. দৈনিক ৫ ওয়াক্ত নামাজ পড়বেন।
২. নিজেকে গভীরভাবে অনুভব করবেন।
৩. রাতে ঘুমানোর চেষ্টা করবেন। যদি ঘুম না আসে তাহলে আল্লাহর ইবাদত করবেন।
৪. সৃষ্টিকর্তার কাছে মুনাজাত এ দোয়া করবেন।
৫. আপনার পছন্দের কোন একটা নিরব জায়গায় যাবেন৷ আর বাতাসের সাথে ঘন ঘন দীর্ঘশ্বাস ফেলবেন।
৬. কোরআন অর্থ সহ পড়বেন। ”

এরপর লোকটা বললো সাতদিন পড় ঠিক এই জায়গায় আমরা আবার দেখা করবো।
রফিক সাহেবে লোকটার কথা শুনার পর বাসায় চলে গেলেন। এবং পরের দিন সকাল থেকে লোকটার কথা মতন এই কাজগুলো করা শুরু করেন। এইভাবে করতে করতে রফিক সাহেব ৬ দিন পর তার হতাশা কাটিয়ে সুস্থ জীবনে পিরে এসেছে। এখন সে তার সকল কাজে এক্টিভ৷ সে এখন আবার তার ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান নতুন করার চিন্তা করছে।
আজ সপ্তম দিন। আজর রাতে সে ঐ জায়গায় লোকটার সাথে দেখা করতে যায়। লোকটা তাকে জিজ্ঞেস করে ” কি জনাব এখন কি আর হতাশা আছে?” রফিক সাহেব বললেন ” না আমি এখন আমার কাজে যথেষ্ট এক্টিভ”
এর পর লোকটা বললো ” ইসলাম ই পারে ডিপ্রেশন থেকে আমাদের মুক্তি দিতে” এই বলে লোকটা চলে গেলেন।….

এইগল্পটা থেকে আমাদের শিক্ষার বিষয় হলো আমারা যখনই হতাশায় পড়বো তখন বেশি বেশি আল্লাহর ইবাদত করবো। তাহলে ইনশাআল্লাহ আমার ডিপ্রেশন থেকে মুক্তি পাবো।
‌এইছাড়াও জ্ঞানী লোকেরা কিছু কথা বলেছেন তাদের কথাগুলো অনুসরণ করতে পারি কথা গুলো হলো:

১.নিজের মন থেকে এই depression নামক রোগটিকে দূর করতে গেলে প্রথমে তো তোমাকে এই সরল সত্যটা বুঝতে হবে যে, জীবন এতটাও সহজ নয় | যদি জীবনে Ups & Downs-ই না থাকে তাহলে সেই জীবনের কোনো অর্থই থাকেনা | জীবনে কোনো সমস্যা না থাকলে কোনো মানুষই এর সঠিক অর্থটা বুঝতে পারতো না |

২.Depression থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য একটি মানুষকে সবার আগে তার অতীতের খারাপ স্মৃতি গুলিকে ভোলা প্রয়োজন কারণ সেইসব স্মৃতিই একটি মানুষকে জীবনে নতুন কিছু করতে বা নতুন ভাবে ভাবতে বারংবার বাঁধার সৃষ্টি করে |

৩.Depressed মানুষরা সাধারণত Negative বিচার ভঙ্গি দিয়ে পৃথিবীকে দেখে থাকে | যেহেতু তাদের মন সেইসময় খারাপ থাকে তাই এই জিনিসটাই হওয়াই স্বাভাবিক | এই কাজটা থেকে দুরে থাকার চেষ্টা করতে হবে।

উপরোক্ত এই কাজগুলো করলে আশা করি আমরা খুব সহজেই ডিপ্রেশন বা হতাশা থেকে মুক্তি পাবো।

Remember one thing ” Al-Quran save us from depression “

আপনার মন্তব্য জানান