জাতিসংঘের ‘রিয়েল লাইফ হিরো’ স্বীকৃতি পেলো লক্ষ্মীপরের কৃতিসন্তান ডাকসু নেতা সৈকত

0
224

বিশ্ব মানবিক দিবস (World Humanitarian Day) উপলক্ষে জাতিসংঘ কর্তৃক ‘রিয়েল লাইফ হিরো’ হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সদ্য সাবেক সদস্য ও বাংলাদেশ পোস্ট ফ্রেন্ডস ফোরামের সভাপতি তানভীর হাসান সৈকত।

Image may contain: 1 person, text that says 'Asia Pacific World Humanitarian Day Bangladesh TANBIR HASAN SHAIKAT TELEVISION AND THE MOVIE STORIES OFFERED US MANY HEROES WHO VOWED THEIR LIVES ΤΟ SERVE THE PEOPLE BUT TANBIR HASAN IS SURELY ACTING LIKE ONE REAL- LIFE HUMANITARIAN HERO'করোনাভাইরাস জনিত লকডাউনের পরিস্থিতিতে টানা ১১৬ দিন ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও আশেপাশের এলাকার ছিন্নমূল ৫০০ থেকে ক্রমান্বয়ে ১০০০ মানুষের খাবার জোগানোর ভার নিয়েছিলেন সৈকত। এই কার্যক্রমের ইতি টেনে বন্যাকবলিত মানুষের পাশে দাঁড়াতে ছুটে গেছিলেন বিভিন্ন এলাকায়। তাঁর এই সেবা কার্যক্রম পরিচালনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন পেশাজীবি আর্থিক সহয়তা করেছেন।

স্বীকৃতির শিরোনামে বলা হয়, টেলিভিশন ও সিনেমার গল্পে আমরা অনেক হিরোকে দেখি যারা মানুষের সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করেন কিন্তু তানভীর হাসান সৈকত বাস্তব জীবনে একজন সত্যিকারের মানবিক হিরোর মতো কাজ করেছেন।

এ বিষয়ে তানভীর হাসান সৈকত বলেন, জাতিসংঘের মতো একটি জায়গা থেকে রিয়েল লাইফ হিরো হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া গর্বের ব্যাপার। জাতিসংঘের এই স্বীকৃতি ভবিষ্যতে গণমানুষের জন্য কাজ করতে আমাকে উৎসাহ যোগাবে, আমার কাজের গতি বাড়িয়ে দিবে৷ ভবিষ্যতে দেশের মানুষের জন্য পূর্বের মতোই আমি সবসময় কাজ করে যেতে চাই।

সৈকত বলেন, জাতিসংঘের ঢাকা অফিস থেকে আমার সাথে যোগাযোগ করা হয়। এর পর তাঁরা সার্বিক দিক বিবেচনা করে বাংলাদেশ থেকে আমাকেসহ আরও চারজন কে মনোনীত করেন।

তানভীর হাসান সৈকত ‘রিয়েল লাইফ হিরো’ হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় বাংলাদেশ পোস্ট পরিবারের পক্ষ থেকে তাকে অনেক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

সৈকত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগে পড়ছেন। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সদস্য ছিলেন। ডাকসুতে সদস্য নির্বাচিত হয়ে গণরুম প্রথা উচ্ছেদ, ক্যাম্পাসে যানবাহনের ভাড়া নির্ধারণ, হল ক্যান্টিনের খাবারের মান বাড়ানো নিয়ে সোচ্চারসহ আরও ভূমিকা রেখেছেন।

আপনার মন্তব্য জানান